• বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ০২:০৯ পূর্বাহ্ন

প্রাণ ফিরে পেয়েছে শেখ রাসেল মিনি ষ্টেডিয়াম

News Desk
আপডেটঃ : শনিবার, ২ সেপ্টেম্বর, ২০২৩

বিকাশ স্বর্নকার,বগুড়া প্রতিনিধিঃ

বগুড়া সোনাতলার প্রাণ ফিরে পেয়েছে শেখ রাসেল মিনি ষ্টেডিয়াম।‌ বিগত ২হাজার ১ সালে এ ষ্টেডিয়ামটি নির্মিত হলেও দিনে থাকতো গরু ছাগল, দখল সহ রাতে থাকতো নেশাখোরদের দখলে। ফলে খেলা প্রেমী যুবক ও ছাত্রদের খেলার পরিবেশ একেবারেই নষ্ট হয়েছিল।

অপরদিকে যদিও এ খেলার মাঠটি যাতে করে কোনদিন আলোর মুখ না দেখে সে কারণে স্থানীয় কিছু লোক রাখতো ইট বালু আবার কেউবা রাখতো নানা ধরনের আবর্জনা। এ বিষয় গুলো মাথায় নিয়ে নরেচরে বসে কমিট। তবে বর্তমান কমিটির নানান উদ্যোগের কারণে ইতিমধ্যেই সাফল্যের সাথে এবং হাজার হাজার দর্শকের উপস্থিতিতে শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভিসি কাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত হয়েছে।

অপরদিকে ষ্টেডিয়ামের পরিবেশ বজায় রাখতে দেওয়া হয়েছে চারিদিকে লোহার নেট দিয়ে ঘেড়া। ফলে ষ্টেডিয়ামটিতে বর্তমানে সবুজ ঘাসের অঙ্কুরগুলি ধীরে ধীরে বড় হয়ে মাঠজুড়ে অপরুপ দৃশ্য হয়ে সেজেছে। তবে ভোরে ষ্টেডিয়ামে গেলে চোখে পড়বে শিশির ভেজানো সবুজ ঘাসের উপর আশপাশের স্থানীয় লোকজন এসে প্রাত ব্যয়াম করছে। ‌

এদিকে পরন্ত বিকালে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী ও যুব সমাজ এসেও খেলাধুলা করছে ষ্টেডিয়ামটিতে। এ বিষয়ে উপজেলা ক্রিয়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক ও এক সময় বগুড়া তথা রাজশাহী বিভাগীয় পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ ফুটবল খেলোয়াড় এবং খেলার জগতে রয়েছে তার ব্যপক অর্জন সেই ক্রিয়াবিদ তাহেরুল ইসলাম তাহের বলেন, মাদক ও নেশা মুক্ত সোনাতলা বিনির্মাণে স্কুল ও কলেজের ছাত্রদের খেলা মুখি করতে ইতি মধ্যে ষ্টেডিয়ামকে ঢেলে সাজানো হয়েছে।

উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও সংসদ সদস্যের সহযোগিতায় বাচকেট গ্ৰাউন্ড নির্মাণ করা হচ্ছে। আগামী থেকে সেখানে নিয়মিত বাচকেট খেলোয়াড় তারা এ খেলায় অংশগ্রহণ করতে পারবেন। তবে তিনি আরো বলেন এখানে খেলাধুলার মান বজায় রাখতে লং টেবিল টেনিস ও ফুটবলারদের ক্যাপিং একান্ত প্রয়োজন সেই সাথে প্রতিটি উপজেলায় ক্রিয়া সংস্থার যৌথ হিসাব খোলার দাবি করেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো নিউজ