• সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ১২:১৩ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
মধুপুরে পহেলা বৈশাখ উপলক্ষে মঙ্গল শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত কৃষি জমির টপ সয়েল কাটায় সাতকানিয়ায় মোবাইল কোর্টের অভিযানে ১ জনকে কারাদন্ড সেনবাগে সাংবাদিকদের সম্মানে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যানের ইফতার মাহফিল মধুপুরে খালেদা জিয়ার সু-স্বাস্হ্য ও রোগমুক্তি কামনায় দোয়া ও ইফতার মাহফিল দুঃস্থ অসহায়দের মাঝে ‘লায়ন্স ক্লাব অফ কসমোভ্যালী’র ঈদবস্ত্র বিতরন সেনবাগ পৌরবাসীকে পবিত্র ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন পৌর মেয়র ভিপি দুলাল মধুপুর কুড়ালিয়া(বাগবাড়ি)জামে মসজিদে দোয়া ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত সেনবাগে দুই হাজার গরীব,দু:স্হ ও অসহায়দের মাঝে হাসান মঞ্জুর এর ঈদ উপহার বিতরণ মধুপুরে সর্বস্তরের জনগণের আয়োজনে ইফতার ও দোয়া মাহফিল নতুন ব্রীজ সিএনজি স্ট্যান্ডে র‌্যাবের জালে আঁটকা পরল ৬ চাঁদাবাজ,গডফাদাররা ধরাছোঁয়ার বাইরে

ভূজপুরের আলোচিত হরিমোহন হত্যাকান্ডের সাজাপ্রাপ্ত আসামী নিপত র‌্যাবের হাতে গ্রেফতার

News Desk
আপডেটঃ : শনিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০২৩

এনামুল হক রাশেদী, চট্টগ্রাম থেকেঃ

উত্তর চট্টগ্রামের ভুজপুর থানার আলোচিত ও চাঞ্চল্যকর হরিমোহন রায় হত্যা মামলার যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত পলাতক একমাত্র আসামিকে দীর্ঘ ১৬ বছর পর গ্রফতার করেছে র‌্যাব ৭, চট্টগ্রাম। গ্রেফতারকৃত আসামী হচ্ছে নিপদ কর্মকার (৩৬), পিতা- মৃত যুবরাজ কর্মকার, সাং- রামগর চা বাগান, থানা-ভুজপুর, জেলা-চট্টগ্রাম।

২১ সেপ্টেম্বর’২৩ ইং বৃহস্পতিবার র‌্যাব-৭ চট্টগ্রাম ও র‌্যাব-১১ নারায়নগঞ্জ- এর যৌথ একটি আভিযানিক টীম নরসিংদী জেলার সদর থানা এলাকা থেকে গ্রেফতার করে চট্টগ্রামে নিয়ে আসে।
ঘটনার বিবরনে প্রকাশঃ ২০০৭ সালের ০২ অক্টোবর নিহত ভিকটিম হরিমোহন রায় ও তার স্ত্রী’র মধ্যে পারিবারিক বিষয় নিয়ে ঝগড়া হয়।

উক্ত ঝগড়ার জের ধরে ০৩ অক্টোম্বর ২০০৭ইং তারিখ সকালে পুনরায় তাদের মধ্যে ঝগড়া হয়। ঝগড়া শেষে সকাল আনুমানিক ০৮.৩০ ঘটিকার সময় ভিকটিম হরিমোহন রায় স্থানীয় চা বাগানে কাজের উদ্দেশ্যে বাড়ি থেকে বের হলে পথিমধ্যে তার স্ত্রী’র ভাই নিপত কর্মকার তার পথরোধ করে এবং বোনের সাথে ঝগড়া করা নিয়ে কথা কাটাকাটি হয়। কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে নিপত কর্মকার ভিকটিমকে হত্যার উদ্দেশ্যে লাঠি দ্বারা ভিকটিমের মাথায় আঘাত করে মাটিতে ফেলে এলোপাতাড়ি পিটিয়ে মারাত্মক জখম করে। এ সময় ভিকটিম হরিমোহন রায় এর চিৎকার শুনে আশে-পাশের লোকজন ঘটনাস্থলে এগিয়ে আসলে নিপত কর্মকার ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়।

পরবর্তীতে স্থানীয় লোকজন রক্তাক্ত ও গুরুত্বর জখম অবস্থায় ভিকটিম হরিমোহন রায়’কে উদ্ধার করে স্থানীয় স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে যায় এবং সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যবরণ করেন। উক্ত মর্মান্তিক হত্যাকান্ডের ঘটনায় নিহত ভিকটিমের বোন বাদী হয়ে গত ০৪ অক্টোবর ২০০৭ইং তারিখ চট্টগ্রাম জেলার ভুজপুর থানায় নিপত কর্মকার’কে আসামী করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করে। যার মামলা নং-০১, তারিখ ০৪ অক্টোবর ২০০৭ইং, ধারা-৩০২ পেনাল কোড। মামলা রুজু হওয়ার পর আসামী আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর নিকট হতে গ্রেফতার এড়াতে আত্মগোগনে চলে যায়।

পরবর্তীতে পুলিশ প্রতিবদেন এবং সাক্ষীদের সাক্ষ্য প্রদানের ভিত্তিতে বিজ্ঞ আদালত দীর্ঘ বিচার প্রক্রিয়া শেষে আসামীর অনুপস্থিতিতে যাবজ্জীবন কারাদন্ড এবং ২০ হাজার টাকা অর্থদন্ড প্রদান করে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন। এরই প্রেক্ষিতে র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারে যে, বর্ণিত হত্যা মামলার প্রধান আসামী নরসিংদী জেলার সদর থানা এলাকায় অবস্থান করছে।

উক্ত তথ্যের ভিত্তিতে গত ২১ সেপ্টেম্বর ২০২৩ইং তারিখ র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম এবং র‌্যাব-১১, নারায়ণগঞ্জ এর যৌথ অভিযানিক দল বর্ণিত এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে আসামী নিপদ কর্মকার (৩৬), পিতা- মৃত যুবরাজ কর্মকার, সাং- রামগর চা বাগান, থানা-ভুজপুর, জেলা-চট্টগ্রাম’কে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়। পরবর্তীতে উপস্থিত সাক্ষীদের সম্মুখে আটককৃত আসামীকে জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করে যে, সে বর্ণিত হত্যা মামলায় যাবজ্জীবন কারাদন্ড প্রাপ্ত পলাতক আসামী। গ্রেফতারকৃত আসামীকে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহনের নিমিত্তে সংশ্লিষ্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে বলে জানিয়েছে র‌্যাব-৭ চট্টগ্রাম।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো নিউজ