• শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ০১:৪৯ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
বগুড়ায় ভোট গ্রহনকারী কর্মকর্তাদের প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত নোয়াখালীতে তিন উপজেলায় আওয়ামী লীগ নেতারা বিজয়ী বগুড়ায় নানা আয়োজনে জেলা কর্মশালা-২০২৪ অনুষ্ঠিত ধামরাইয়ে আওয়ামী লীগের পাঁচ পদধারী প্রার্থীদের হারিয়ে আব্দুল লতিফ উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত মধুপুরে অভ্যন্তরীণ বোরো ধান-চাল সংগ্রহ অভিযানের উদ্বোধন বিশ্ব মেট্রোলজি দিবস-২০২৪ উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত টাঙ্গাইলের মধুপুরে হজ্জ প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত বাঁশখালী লবন শ্রমিক কল্যান ইউনিয়ন-এর নির্বাহী কমিটি গঠিত ৪ বার পুরস্কৃার পেলেন গ্রাম পুলিশ ময়না দাস সিলেট-চট্টগ্রাম ফ্রেন্ডশিপ ফাউন্ডেশন চট্টগ্রাম শাখার সভা অনুষ্ঠিত

ধামরাইয়ে বড় ভাইয়ের হাতে নৃশংসভাবে ছোট ভাই খুন, খুনি আটক

News Desk
আপডেটঃ : বুধবার, ৪ অক্টোবর, ২০২৩

স্টাফ রিপোর্টারঃ

ঢাকার ধামরাইয়ে বড় ভাইয়ের হাতে নৃশংসভাবে খুন হয়েছে ছোট ভাই। মাত্র ৬০ হাজার টাকার জন্য দাঁড়ালো অস্ত্র দিয়ে উপর্যুপোরি কুপিয়ে ছোট ভাই মোহাম্মদ ফারুক হোসেনকে(৪৫) নির্মমভাবে হত্যা করে বড় ভাই মোহাম্মদ উসমান আলী(৫০) ।স্থানীয় লোকজন খুনি বড় ভাই ওসমান আলীকে রশি দিয়ে খুটির সঙ্গে বেঁধে রেখে পুলিশের কাছে সোপর্দ করেন।

মোহাম্মদ ফারুক হোসেন ও উসমান আলী কাকরান গ্রামের মোহাম্মদ আবদুর রহমান কালার ছেলে। এনৃসংশ হত্যাকান্ডের ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার (৪ অক্টোবর) সকালে ধামরাই উপজেলার ভাড়ারিয়া ইউনিয়নের কাকরান গ্রামে।

ধামরাই থানা পুলিশ খুন হওয়া ওই ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধার উদ্ধার করেছে।মরদের প্রথম রিপোর্ট ময়না তদন্তের জন্য রাজধানীর হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মর্গে প্রেরণ করেছে।এ ব্যাপারে ধামরাই থানায় একটি মামলা দায়ের হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছে ধামরাই থানার পুলিশি সূত্র।এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় পরিবারের সদস্যদের মাঝে বইছে গভীর শোকের মাতম ও কান্নার আহাজারি।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, ধামরাই উপজেলার ভাড়ারিয়া ইউনিয়নের কাকরান গ্রামের মোঃ আব্দুর রহমান কালার বড় ছেলে উসমান আলী তার ছোট ছেলে ফারুক হোসেনের কাছে ধারের(করজ) ৬০ হাজার টাকা পায়। বুধবার (৪ অক্টোবর)সকাল দশটার দিকে বড় ভাই উসমান আলী ছোট ভাই ফারুকের কাছে তার দাবিকৃত ৬০ হাজার টাকা ফেরত চায়।ফারুক হোসেন উক্ত টাকা দিতে পারবে না বলে অপারগত প্রকাশ করলে উত্তেজিত হয়ে দাঁড়ালো অস্ত্র দিয়ে উপর্যুপোরি কুপিয়ে মারাত্মকভাবে রক্তাক্ত জখম করে।এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু ঘটে।

খবর পেয়ে স্থানীয় লোকজন ঘটনাস্থলে এগিয়ে এসে খুনি বড় ভাই উসমান আলীকে আটক করে রশি দিয়ে একটি গাছের সঙ্গে বেঁধে রাখে।মরদেহটি সাভার এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে ফারুক হোসেন বেঁচে নেই বলে জানান কর্তব্যরত চিকিৎসকরা। সঙ্গে সঙ্গে বিষয়টি থানার পুলিশ অফিসার ইনচার্জ পুলিশ পরিদর্শক মোহাম্মদ হারুন অর রশিদকে অবহিত করেন।

সঙ্গে সঙ্গে তিনি ধামরাই থানার পুলিশ পরিদর্শক (অপারেশন) নির্মল চন্দ্র দাসকে ফোর্স সহ ঘটনাস্থলে পাঠান।এই ঘটনায় নিহতের মরদেহ উদ্ধার ও সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করেন।এর সঙ্গে স্থানীয়দের হাতে আটক খুনি বড় ভাই ওসমান আলীকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে আসেন। এ ব্যাপারে ধামরাই থানায় একটি মামলা বের করা হয়েছে।ময়না তদন্তের জন্য মরে দেখো রাজধানীর হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে ।

এ ব্যাপারে ধামরাই ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য (মেম্বার) মোঃ আলমগীর হোসেন বলেন-ঘটনাটি খুবই মর্মান্তিক। মাত্র ৬০ হাজার টাকার জন্য অস্ত্র দিয়ে উপর্যুপোরি কুপিয়ে সহোদর ছোট ভাইকে নৃসংসভাবে খুন করে বড় ভাই। খবর পেয়ে সঙ্গে সঙ্গে ঘটনাস্থলে আসি এবং বিষয়টি পুলিশকে অবহিত করলে পুলিশ ঘটনা চলে এসে মরদেহটি উদ্ধার ও খুনি বড় ভাইকে গ্রেপ্তার করে থানায় নিয়ে যায়।

ধামরাই থানার পুলিশ পরিদর্শক (অপারেশন) নির্মল চন্দ্র দাস বলেন,বড় ভাইয়ের হাতে ছোট ভাই খুন হওয়ার ঘটনাটি জানার পরই ঘটনাস্থলে যাই। এরপর নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে রিপোর্ট তৈরি করি।জনতার হাতে আটক খুনি বড় ভাইকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে আসি। এব্যাপারে থানায় মামলা হয়েছে।ময়না তদন্তের জন্য লাশ রাজধানী ঢাকার শহীদ সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ ও খুনিকে আদালতে পাঠানো হয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো নিউজ