অর্থ ও বাণিজ্যপ্রযুক্তি

আলেশা মার্টকে অর্থ-সহায়তা দেবে না সরকার

ই-কর্মাস প্রতিষ্ঠান গুলো গ্রাহকদের নানা অভিযোগে জর্জরিত। দেশের বেশ কিছু ই-কর্মাস প্রতিষ্ঠান গ্রাহকদের সাথে প্রতারণা করেছে। এরই মধ্যে গ্রেফতার হয়েছে আলোচিত-সমালোচিত ই-কর্মাস প্রতিষ্ঠান ইভ্যালির চেয়ারম্যান ও এমডি। এরপর থেকে ই-কর্মাস প্রতিষ্ঠানকে নিয়ে সরকার নানা পদক্ষেপ গ্রহণ করে। এরই মধ্যে সরকারের কাছে অপর একটি আলোচিত ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান আলেশা মার্ট আর্থিক সহায়তা চেয়েছে ৩০০ কোটি টাকা। তবে এই প্রতিষ্ঠানকে আর্থিক সহায়তা দিবে না সরকার। সরাসরি ব্যাংকে টাকার জন্য আবেদন করার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। ১৫ ডিসেম্বর এক চিঠির মাধ্যমে প্রতিষ্ঠানটির ব্যবস্থাপনা পরিচালককে এ সিদ্ধান্তের কথা জানায় বাণিজ্য মন্ত্রণালয়।

ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান আলেশা মার্ট সরকারের কাছে ৩০০ কোটি টাকার চলতি মূলধন সহায়তা চেয়ে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে আবেদন করে আলেশা মার্ট কর্তৃপক্ষ। গ্রাহকের টাকা ফেরত দেওয়া ও নিজেদের কার্যক্রম পুনরায় চালু করতে এ অর্থ–সহায়তা চেয়েছিল আলেশা মার্ট। আলেশা মার্টের ওই আবেদন নাকচ করে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের দেওয়া চিঠিতে বলা হয়, ‘বাণিজ্য মন্ত্রণালয় এ ধরনের কোনো অর্থ প্রদান করতে পারে না। তাই বাণিজ্য মন্ত্রণালয় আলেশা মার্টকে সরাসরি ব্যাংকে আবেদন করার পরামর্শ দিয়েছে।’ এ বিষয়ে জানতে আলেশা মার্টের চেয়ারম্যান মঞ্জুর আলম শিকদারের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করে তার নম্বরটি বন্ধ পাওয়া যায়।

এর আগে ১ ডিসেম্বর নিরাপত্তার কারণ দেখিয়ে আলেশা মার্ট তাদের দাপ্তরিক কার্যক্রম বন্ধ করে দেয়। প্রতিষ্ঠানটি তখন জানায়, তাদের কার্যালয়ে কতিপয় লোক এসে কর্মকর্তাদের গায়ে হাত তোলেন এবং বলপ্রয়োগের চেষ্টা করেন। এ কারণে তারা এমন সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হয়েছে।

বাণিজ্য মন্ত্রণালয়কে দেওয়া আলেশা মার্টের আবেদনপত্র উল্লেখ করা হয়, প্রতিষ্ঠানটির কর্মীর সংখ্যা ৫০ হাজার এবং অ্যাপ ব্যবহারকারীর সংখ্যা প্রায় ১৩ লাখ। এ ছাড়া প্রতিষ্ঠানটি প্রতি মাসে আট লাখ ক্রয়াদেশ পেয়ে থাকে বলেও উল্লেখ করেছিল চিঠিতে। বাণিজ্য মন্ত্রণালয়কে করা ঋণ আবেদনের বিপরীতে প্রতিষ্ঠানটি তিন হাজার ডেসিমেল জমি বন্ধকসহ প্রয়োজনীয় জামানত দেওয়ার আশ্বাস দিয়েছিল। কিন্তু সেই আবেদন নাকচ করে দিয়েছে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button