জেলার খবর

বাঁশখালীতে গৃহবধূ আখিঁ হত্যাকারীদের ফাঁসির দাবীতে দীর্ঘ মানববন্ধন

এনামুল হক রাশেদী, বাঁশখালী উপজেলা প্রতিনিধি-(চট্টগ্রাম)

বাঁশখালীতে গৃহবধূ আখিঁ হত্যাকারীদের ফাঁসির দাবীতে দীর্ঘ মানববন্ধন

চট্টগ্রামের সাউদার্ন ইউনিভার্সিটির মেধাবী শিক্ষার্থী গৃহবধু মাহমুদা খানম আঁখি হত্যার প্রতিবাদ ও দৃষ্ঠান্তমুলক শাস্তির দাবীতে চট্টগ্রাম জেলার বাঁশখালী উপজেলায় মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। স্মরনকালের দির্ঘ এ মানববন্ধনে বাঁশখালীর বিভিন্ন পেশাজীবি ও দল-মত নির্বিশেষে সর্বস্তরের মানুষের স্বতস্ফূর্ত অংশগ্রহনে বিক্ষূদ্ধ মানুষের মানববন্ধন বাঁশখালী প্রধান সড়কে উপজেলা কমপ্লেক্স গেইটের দু’পাশে দীর্ঘ লাইন পর্যন্ত বিস্তৃতি লাভ করে।

২৩ ডিসেম্বর’২১ ইং, বৃহস্পতিবার বেলা ১২ টায় বাঁশখালী উপজেলা কমপ্লেক্স গেইটের সামনে উপজেলা প্রধান সড়কে বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের ব্যানারে এ মানববন্ধন কর্মসূচী অনুষ্ঠিত হয়। ঘন্টা ব্যাপী এ মানববন্ধনে নিহতের শোকার্ত স্বজনরা, সহপাঠী শিক্ষার্থী- শিক্ষক ও বন্ধুরা, বিভিন্ন রাজনৈতিক দল ও সামাজিক ও পেশাজীবি সংগঠনের নেতাকর্মী সহ বিভিন্ন ম শ্রেনী- পেশার লোক অংশ গ্রহন করেন।

মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, নিহত অাঁখির মামা আশরাফ আলী, যুবলীগনেতা এম. মনছুর আলী, আব্দুল আজিজ, কাউন্সিলর রুজিয়া সোলতানা রুজি, যুবলীগনেতা আব্দুল ওয়াদুদ লেদু, কায়েশ সরোয়ার সুমন, হামিদ হোছেন, বেলাল উদ্দিন, আব্দুল আউয়াল টিপু, শাহেদুল ইসলাম, কাজী সাহাব উদ্দীন, রাজিব, মোহাম্মদ কাইছার, মিনহাজ উদ্দিন রুবেল, ফখরুল ইসলাম রবিন, মোঃ মহিউদ্দিন, মোঃ শহিদ, আরিফুল ইসলাম, মিজান, ইফতেখার, নুর উল্লাহ, হেলাল, মোঃ ইকবাল, সালেক, সালমান, সাকিব, রাফি, ইমতিয়াজ, মুবিন, রিয়াদ, মহিউদ্দিন, ইমু, আরিফ, রাকিব, অভি, রাসেল, আতাউল, জাবেদ, রায়হান, তারেক, শুভজিৎ, শহিদ, ইমরান, মু. রনি, হোসাইন, হাম্মাত, ইসতিয়াক, নাদের শাহ, হেলাল মুন্না প্রমূখঃ।

উল্লেখ্যঃ বিভিন্ন প্রলোভনে আঁখিকে বিয়ের পর থেকে কথিত ঘাতক আইনজীবী স্বামী আনিসুল ইসলাম মাহমুদা খানম আঁখিকে টাকা-পয়সার জন্য চাপাচাপি করতে থাকে। সর্বশেষ ১০ লক্ষ টাকা যৌতুক দাবী করলে, টাকা না পেয়ে তার স্বামী স্ত্রীর উপর অমানষিক নির্যাতন করে। এক পর্যায়ে পায়ের বুট জুতা দিয়ে পেটে লাথি মারে। এর পর দীর্ঘসময় ধরে গৃহবন্ধী করে রাখে আঁখিকে। হাতের মোবাইল ফোন কেড়ে নেয়। পরে অবস্থা সংকটাপন্ন হলে একটি বেসরকারী মেডিকেলে ভর্তি করা হয় তাকে। বিশেষজ্ঞ ডাক্তার সূত্রে জানা যায়, ঘাতকের লাথির আঘাতে আখিঁর পেটের নাড়িতে আঘাত হয়। গত ১৯ ডিসেম্বর চিকিৎসাধীন অবস্থায় আঁখির মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় নির্যাতনকারী স্বামী পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয়।

মানববন্ধনে অংশগ্রহনকারী বক্তারা সম্প্রতি চাঞ্চল্যকর আঁখি হত্যার দৃষ্টান্তমুলক শাস্তি এবং ঘাতক স্বামী আনিসুলের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবী জানায়।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button